আমরা মহসিনিয়ানস্ পুনর্মিলনী

17

চট্টগ্রাম সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের সংগঠন আমরা মহসিনিয়ানস-৮১ পূর্নমিলনী ও পারিবারিক মিলনমেলা অনুষ্ঠান গত ৩০ নভেম্বর বিকাল ৪টায় আগ্রাবাদস্থ হোটেল ইছামতি হলে সংগঠনের সভাপতি মনজুর আলম চৌধুরী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহম্মুদ বলেন, ১৯৭৮ সালে আমি চট্টগ্রাম সরকারী হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজে ভর্তি হই এবং রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ি। গোলাম মোস্তাফা বাচ্চু সভাপতি আমি সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করি। বাবার দুঃচিন্তার কারণ হলেও রাজনীতি থেকে বিচ্যুত হইনি। গাছ গাছালীতে ভরপুর উচু নিচু পাহাড়ের সুন্দর মনোরম পরিবেশ থাকলেও জীবনের ঝুকি নিয়ে রাজনীতি চালিয়ে যেতে হয়েছিল। কত মধুর স্মৃতি সেই দিনগুলিতে ছিল এখনও মাঝে মধ্যে মনে হয় সেই ছাত্র জীবনের দিনগুলো ফিরে যাই। কিন্তু তা হবার নয়। বরং আমরা মৃত্যুর দিকেই অগ্রসর হচ্ছি এটাই নিয়তি। আগত আমরা মহসিনিয়ানস্দের ছেলে-মেয়েদের উদ্দ্যেশে তিনি বলেন, ছাত্র থাকাকালে রাজনীতির কারণে অনেক রাত করে বাসায় ফিরতে হলেও বাসায় গিয়ে দেখি বাবা আমার প্রতিক্ষায় বসে আছে। কত ভালবাসা থাকলে সব বাবা-মা ছেলে মেয়েদের জন্য সবসময় ফেরার প্রতিক্ষায় থাকে। তোমরা ও যখন বাবা মা হবে তখন বুঝতে পারবে বাবা মারা কেন ছেলেমেয়েরা বাসায় যথাসময়ে না আসলে দুঃচিন্তায় মন খারাপ করে বসে থাকে। তাদের উদ্দ্যেশে তিনি আরো বলেন, বাবা মারা বয়স বেশী হয়ে বুড়ো হয়ে গেলে শিশুর মত হয়ে যায় তখন তোমরা তাদেরকে আদর ভালোবাসা দিয়ে আগলে রাখবে। তিনি মহসিনিয়ানস্ এর সকল সকল সদস্যবৃন্দকে মানবিক ও সামাজিক কাজে নিজেদেরকে আত্মনিয়োগ করার আহব্বান জানান। কফিল চৌধুরীর সম্পদানায় আমরা মহসিনিয়ানস- এর প্রকাশিত বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করেন। আমরা মহসিনিয়ানস্ নেতৃবৃন্দ মন্ত্রী মহোদয়কে উত্তোরীয় এবং সম্মাননা ক্রেষ্ট ফুল দিয়ে সম্মানিত করেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দিলদার হায়াত খানের পরিচালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের উপদেষ্ঠা লিয়াকত আলী চৌধুরী, আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সাবেক সদস্য আমরা মহসিনিয়ানস-৮১ এর সহ সভাপতি কফিল উদ্দিন চৌধুরী, সংগঠন নেতা মুছা কামাল মাহমুদ, শওকত আজম খান, আশেক-ই-এলাহী, হাজী ইলিয়াছ চৌধুরী, মো: আসাদ, এড. মোহাং ইউছুপ, শাহাজান সুফী প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি