আবরার হত্যা বিচার দাবিতে চবিতে ছাত্রীদের বিক্ষোভ

চবি প্রতিনিধি

9

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ছাত্রীরা। হত্যাকান্ডের ঘটনায় দ্রুত বিচারের দাবি জানিয়ে বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তারা। এসময় এক ছাত্রীকে মুখে তালা ঝুলিয়ে প্রতীকী প্রতিবাদ করতে দেখা গেছে।গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে শামসুন্নাহার হল থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন ছাত্রীরা। মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে এসে মানববন্ধন করেন তারা। এসময় বৃষ্টি উপেক্ষা করে মিছিল নিয়ে কাটাপাহাড় সড়ক হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন ছাত্রীরা। এ সময় ‘যদি তুমি চুপ থাকো তবে তুমি বেশ, যদি তুমি অন্যায়ের প্রতিবাদ করো তবে তুমি শেষ’, ‘ভারতীয় আগ্রাসন থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে’, ‘দেশের পক্ষে মীরজাফরদের প্রতিবাদ করলে শেষ! হায় দেশ তুমি শেষ’ ‘দেশের স্বার্থ বিরোধী চুক্তি বাতিল করো’ সম্বলিত হাতে লেখা পোস্টার প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া ‘জেগে ওঠো চবিয়ান, যদি যায় যাক প্রাণ’, ‘বুয়েট তোমার ভয় নয়, আমরা আছি লক্ষ বোন’, ‘দেশবিরোধী চুক্তি, মানি না মানবো না’ ইত্যাদি সেøাগান দিতে থাকেন তারা।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী ফাহমিদা ইসলাম নাজু, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী তাসনিমা তাবাসসুম ও আয়শা সিদ্দিকা নিবিয়া প্রমুখ। বক্তারা বলেন, শুধুমাত্র একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসের কারণে একজন ছেলেকে হত্যা করা হবে কেন? দেশকে ভালোবাসাই কি তার অপরাধ? আবার অমিত সাহাকে চার্জশিট থেকেও বাদ দেওয়া হয়েছে। আমরা চাই বিচার নিয়ে যেন কোনো প্রহসন না হয়। কোনো হত্যাকান্ডেরই আমরা বিচার পাই না। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়েও এর আগে অনেক হত্যার ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু বিচার হয়নি। এটার ক্ষেত্রে যেন এমনটা না হয়। আমি সাধারণ শিক্ষার্থী। আমিই আবরার। আমি আজ আমার ভাইয়ের বিচার দাবিতে নেমে এসেছি। কেনো তারা একজন শিক্ষার্থী হয়ে অন্য শিক্ষার্থীদের মারতে যায়? এ অধিকার তাদেরকে কে দিয়েছে?
এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর রেজাউল করিম বলেন, তাদের আন্দোলনকে আমরা সাপোর্ট করি। তবে ইতোমধ্যেই দোষীরা অনেকেই গ্রেপ্তার হয়েছে। আমরা আশা করি, তারা বিতর্কিত কোনো বিষয় এর মধ্যে নিয়ে আসবে না; শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করবে।