আজব নির্দেশ কিমের!

24

বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত দেশ উত্তর কোরিয়া। দেশটির ভেতরে কী হচ্ছে তার প্রায় সবই অজানা। তারপরও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বিভিন্ন সূত্র দিয়ে নানা মুখরোচক খবর প্রকাশ করে। সম্প্রতি উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনকে বেশ কিছুদিন প্রকাশ্যে দেখা না যাওয়ায় তার মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়ে। যদিও প্রায় তিন সপ্তাহ পর প্রকাশ্যে আসেন তিনি। কিম সম্পর্কে সর্বশেষ যে তথ্য সামনে এসেছে তা আবারও আলোচনার জন্ম দিয়েছে। উত্তর কোরিয়ার বাসিন্দাদের প্রতিদিন অন্তত ৯০ কেজি মল সরবরাহের আদেশ দিয়েছেন তিনি। খবর জিনিউজের।
কিম জং উনের দেওয়া এই আজব নির্দেশ পালন না করলে শাস্তি ভোগ করতে হবে! কী সেই শাস্তি! সেটিও অদ্ভুত। ৯০ কেজির সঙ্গে আরও বাড়তি ৩০০ কেজি মল সরবরাহ করতে হবে। আর সেটা করতে না পারলে বড় অঙ্কের আর্থিক জরিমানা দিতে হবে। কিন্তু কেন এমন অদ্ভুত নির্দেশ দিলেন কিম? উত্তর কোরিয়ায় সারের সঙ্কট বহুদিনের। দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে কিমের বাবা সংঘাতের জন্যই উত্তর কোরিয়ায় এই সার সঙ্কট। কিন্তু কিম এবার রাসায়নিক সারের বদলে জৈব সারের জোগান বাড়াতে চান। তাই এমন সিদ্ধান্ত। যদিও পশু, পাখির মল সরবরাহ করলেও চলবে। কিন্তু যেভাবেই হোক, প্রতিটি নাগরিককে রোজ ৯০ কেজি মল সরবরাহ করতে হবে।
উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের কাছে সানচনে একটি সার কারখানা উদ্বোধন করেছেন কিম। এই কারখানা নিয়ে নাকি আবেগপ্রবণ কিম। তিনি বলেছেন, তার ঠাকুরদা কিং ইল সাং ও বাবা দ্বিতীয় কিং জং বেচে থাকলে এই সার কারখানার উদ্বোধন দেখে প্রচন্ড খুশি হতেন।