আওয়ামী লীগে দল গোছানোর তৎপরতা

রাহুল দাশ নয়ন

18

সরকার গঠনের পর ঈদুল ফিতরের জন্য সব আয়োজন জমিয়ে রাখা ছিল। ঈদের শেষে এবার দল গোছানোর তোড়জোড় শুরু করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এখন থেকেই দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন, তৃণমূলে কমিটি গঠন, মুজিব বর্ষ পালন, জাতীয় সম্মেলন এবং ঢাকা ও চট্টগ্রামের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় দলটি। এ জন্য সকল ইউনিটের দায়িত্বশীল নেতাদের নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। নির্দেশনা পেয়ে তৃণমূলের নেতারাও নানা কর্মকান্ডের সাথে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে শুরু করেছেন। আগামী এক থেকে দেড় বছর কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সকল স্তরের নেতাকর্মীরা দলীয় কাজে ব্যস্ত সময় পার করবেন।
গত ১১ মে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত দলের বিশেষ বর্ধিত সভায় কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ ও সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম দল গোছাতে ঈদের পরেই দায়িত্বশীল নেতাদের মাঠে নামার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এ সময় প্রতিটি জেলা ইউনিট সফর করে সাংগঠনিক খোঁজ নেয়ার কথাও জানিয়েছিলেন। আগামী ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর পরেই সাংগঠনিক সফরের অংশ হিসেবে নেতারা জেলায় যাবেন বলে জানা গেছে।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ পূর্বদেশকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের তোড়জোড় চলছে। তার আগেই সব ইউনিট কমিটির সম্মেলন করা হবে। বিভাগওয়ারী বর্ধিত সভা করে কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সামনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি আছে। আরো কিছু সাংগঠনিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে সামনের সময়গুলো আওয়ামী লীগের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’
এদিকে গত ১১ মে বিশেষ বর্ধিত সভায় দল গোছানোর বিষয়ে ঈদের পরেই নেতাকর্মীদের সজাগ হওয়ার আহŸান জানালেও এখনো বড়ধরনের কোনো উদ্যোগ দেখা যায়নি। নেতাকর্মীদের মধ্যে ঈদের আমেজ থাকায় সাংগঠনিক কর্মকাÐ শুরু করতে পারেনি উত্তর, দক্ষিণ ও নগর আওয়ামী লীগ। তবে আগামী ২৩ জুন প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচির পরেই আওয়ামী লীগসহ সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নিয়মিত কমিটি করার প্রক্রিয়া শুরুর কথা জানিয়েছেন দায়িত্বশীল নেতারা।
দলীয় সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের সম্মেলনের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ২০২০ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বছরব্যাপী পালন করা হবে ‘মুজিব বর্ষ’। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কর্মসূচিতে দলের সকল স্তরের নেতাকর্মী ছাড়াও সকল শ্রেণীর-পেশার মানুষকে সম্পৃক্ত করতে নির্দেশনা দিয়েছেন। শিশু, তরুণ, যুবক সকলের জন্য আলাদা কর্মসূচি রাখা হবে। কেন্দ্র থেকে ওয়ার্ড পর্যন্ত মুজিব বর্ষের কর্মসূচি পালিত হবে। ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পালন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। এ কর্মসূচি চলাকালেই আওয়ামী লীগের জন্য চ্যালেঞ্জ হবে ঢাকা দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল এ দুটি সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সে হিসেবে দুই মেয়রের চার বছর পর্যন্ত পূর্ণ হওয়ায় আগামী বছর হবে নির্বাচনের বছর। এ দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন নিয়েও ব্যস্ত সময় পার করতে হবে কেন্দ্রীয় হাইকমান্ডকে। একই সাথে নির্বাচন নিয়ে দুই সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে নেতাদের মধ্যে থাকবে নির্বাচনী আমেজ।
যৌথসভা আজ : আগামী ২৩ জুন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আজ সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমÐলীর সাথে সহযোগী সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা সিটি কর্পোরেশন উত্তর ও দক্ষিণ-এর মেয়র এবং ঢাকা মহানগরের অন্তর্গত দলীয় সংসদ সদস্যদের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।