আইনজীবী সমিতি সভাপতির সাথে মানবাধিকার নেতৃবৃন্দের সভা

7

ইউএসএইড ও উইনরক ইন্টারন্যাশনালের অর্থায়ন ও কারিগরি সহায়তায় পরিচালিত বিসি/টিআইপি প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা চট্টগ্রাম ইউনিটের উদ্যোগে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নব নির্বাচিত সভাপতি, বিজ্ঞ আইনজীবীবৃন্দ, এপিপিও মানবাধিকারকর্মীদের এক মত বিনিময় সভা গত ১২ ফেব্রূয়ারি সকাল ১১.০০ টায় সভাপতির চেম্বারে অনুষ্ঠিত হয়। মানব পাচার মামলার ফলোআপ বিষয়ে রায়ের দীর্ঘসূত্রিতা নিয়ে আলোচনায় বলেন মানব পাচার মামলা প্রায় ৫ শতাধিক। এখানে আলাদা ট্রাইবুনাল হলে বাদী ও ভিকটিমগণ আইনী প্রতিকার পেতে সহজ হবে। মামলার দীর্ঘসূত্রিতার ফালে বাদি হতাশ হচ্ছে। স্বাক্ষীগণের বাসা পরিবর্তন হয়ে যায়। এতে আসামীপক্ষ মামলায় বিভিন্নভাবে প্রভাব বিস্তার করছে। পুলিশ অনেক ক্ষেত্রে পক্ষপাতিত্ব মূলক ভূমিকা রাখছে। এতে বাদিগণ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। বিজ্ঞ বিচারক, পিপি/এপিপিদের প্রশিক্ষণ খুবই জরুরি। নব নির্বাচিত সভাপতি অ্যাডভোকেট সভাপতি ছৈয়দ মোক্তার আহমদ বলেন-সরকার বিচার বিভাগে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। মানব পাচার মামলার দ্রুত নিষ্পত্তিতে আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে যা প্রয়োজন তা গুরুত্ব হিসেবে বিবেচনা করা হবে। জনাব ছৈয়দ মোক্তার আহমদের সভাপতিত্বে প্রকল্প কর্মকর্তা মুখলিসুর রহমান ফরহাদী সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অ্যাডভোকেট জামাল হোসেন, লেখক ও গবেষক মাহমুদুল হক আনসারী, অ্যাডভোকেট সাজিয়া সুলতানা মৌরি, এম এ এম রাসেল, মোহাম্মদ পারভেজ, মো মনির উদ্দিন, অ্যাডভোকেট মো: মহিউদ্দীন ফাহাদ, দয়াল হরি আচার্র্য্য, মো: শাহাদাত হোসেন, মো: ওসমান, মো: সাইফুদ্দিন, মো: নেজাম উদ্দীন, মো: হাবিবা নাহার, মুহাম্মদ ইয়াছিন হোসাইন, অ্যাডভোকেট মো: নাজমুল হোসেন, অ্যাডভোকেট রশিক লাল বৈদ্য, অ্যাডভোকেট সাইফুদ্দীন আহমদ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি