অস্ট্রেলিয়ার অ্যাশেজ জয়ে বেঞ্চে থাকতেও রাজি স্টার্ক

7

‘দ্বাদশ’ খেলোয়াড়ের ভূমিকায় মিচেল স্টার্কইংল্যান্ড ও ওয়েলসের বিশ্বকাপে ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। সেই ইংল্যান্ডের মাটিতেই হওয়া অ্যাশেজের প্রথম টেস্টের একাদশে সুযোগ হয়নি মিচেল স্টার্কের। জায়গা ফিরে পেতে কঠোর পরিশ্রম করে যাওয়া এই পেসারের অবশ্য বেঞ্চে থাকতেও অসুবিধা নেই যদি অস্ট্রেলিয়া অ্যাশেজ জিতে নেয়।
২০১৯ বিশ্বকাপে স্টার্কের শিকার ২৭ উইকেট। ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আয়োজনের এক আসরে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়েছেন তাতে। বিশ্বকাপের এই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পর এজবাস্টনে অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে স্টার্কের একাদশে থাকাটা ছিল প্রত্যাশিত। যদিও অস্ট্রেলিয়ার টিম ম্যানেজমেন্ট তাকে বাইরে রেখে সাজায় একাদশ। তাতে ক্রিকেট বিশ্বের অনেকে অবাক হলেও স্টার্কের কোনও অভিযোগ নেই। বরং দলের পারফরম্যান্সকেই বড় করে দেখছেন তিনি। প্যাট কামিন্স, পিটার সিডল ও জেমস প্যাটিনসনকে নিয়ে গড়া পেস আক্রমণ নিয়ে অস্ট্রেলিয়া ২৫১ রানের বড় ব্যবধানে জিতেছে এজবাস্টন টেস্ট।
নিজের খেলার চেয়ে দলের জয়কেই বড় করে দেখছেন স্টার্ক। ‘ক্রিকেট ডটকম ডট এইউ’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘আমরা এখানে (ইংল্যান্ড) এসেছি অ্যাশেজ জিততে। আমরা তো আর শুধু শুধু আসিনি। এবারের অ্যাশেজ আমরা জিততে চাই। আর সেটা যদি প্রত্যেক ম্যাচে আলাদা একাদশে নিয়ে আসে কিংবা পাঁচ টেস্টে একই একাদশ নিয়ে হয়, কোনও সমস্যা নেই। আমাদের মূল লক্ষ্য হলো অ্যাশেজ জয়।’
অবশ্য একাদশে জায়গা ফিরে পেতে অনুশীলনে ঘাম ঝরিয়ে যাচ্ছেন এই পেসার। শুধু তিনি নন, আরেক পেসার জশ হ্যাজেলউডও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মাঠে ফেরার। এ প্রসঙ্গে স্টার্ক বলেছেন, ‘জশ (হ্যাজেলউড) ও আমি কঠোর পরিশ্রম করে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি (একাদশে ফিরতে)। অবশ্য এটা পুরো দলের সবাই করছে।’ চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় টেস্ট লর্ডসে। ১৪ আগস্ট থেকে শুরু হবে ম্যাচটি।