অশ্লীল ভিডিওটি সুমির নয়

23

খুবই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে গিয়েছিলেন ছোট পর্দার অভিনেত্রী শাহনাজ সুমি। স¤প্রতি তার নাম ও পরিচয় উল্লেখ করে ইউটিউবে একটি আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে দেয়া হয়। বিষয়টি জানতে পেরে দ্রত তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের(ডিএমপি) কার্যালয়ে যোগাযোগ করেন। চান আইনি সহায়তা। সুমির অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি আমলে নিয়ে কাজ শুরু করে পুলিশের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশন। তদন্ত সাপেক্ষে সোমবার সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আপত্তিকর ভিডিওটি সুমির নয়।
ভারতীয় একজন নার্সের। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনের অতিরিক্ত সহকারী পুলিশ কমিশনার নাজমুল ইসলাম। তিনি এটির তদন্তের দায়িত্বে ছিলেন। নাজমুল ইসলাম জানান, ‘যারা এই ছবি বা ভিডিও প্রচার বা শেয়ার করছে, সবার আইপি ও অন্যান্য তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে। খুব শিগগিরই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। না জেনে-শুনে বা বুঝে এধরণের অপকর্ম দন্ডনীয় অপরাধ।’ এদিকে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে সুমি বলেন, ‘অবশেষে সত্যিটা জানা গেল। যারা আমার নাম জড়িয়ে এই ভিডিও ছড়িয়েছে, তারা প্রচন্ড মানসিক বিকারগ্রস্ত। এর ফলে আমার ক্যারিয়ার এবং আমাকে মানসিকভাবে হুমকির মুখে ফেলা হয়েছিল।’
সুমি এক্ষেত্রে টিভি নাটকশিল্পীদের সবচেয়ে বড় সংগঠন অভিনয়শিল্পী সংঘের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। কেননা ডিএমপিতে অভিযোগ জানানোর পর গত ৭ সেপ্টেম্বর তিনি বিষয়টি অভিনয়শিল্পী সংঘকে জানান। এরপর সংঘের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। যার ফলে তদন্ত দ্রুত আগায়।