অবশেষে চলচ্চিত্রে অনুদান পেলেন কবরী

15

তৃতীয় বার ‘এই তুমি সেই তুমি’ নামে একটি চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্য জমা দিয়ে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে অনুদান পেলেন নন্দিত অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী।
বৃহস্পতিবার তথ্যমন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি অর্থ বছরে সাধারণ শাখায় তার চলচ্চিত্রটি ৫০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে। পরিচালনার পাশাপাশি এ চলচ্চিত্রের গল্প, সংলাপ, চিত্রনাট্যও তার। বিষয়টি নিয়ে কবরীর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।
বেশ কয়েক বছর আগে চলচ্চিত্রটির ঘোষণা দিলেও আর্থিক সংকটের কারণে এটির নির্মাণ শুরু করতে পারেননি। বছর দশেক আগে সরকারি অনুদানের জন্য ছবির চিত্রনাট্য জমা দিয়েছিলেন; নিয়ম মেনে অনুদান কমিটি থেকে পদত্যাগও করেছিলেন তৎকালীন সংসদ সদস্য কবরী। তারপরও অনুদান না পাওয়ায় গণমাধ্যমে আক্ষেপ প্রকাশ করেছিলেন আজীবন সম্মাননা পাওয়া এ অভিনেত্রী।
গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে, শিগগিরই চলচ্চিত্রের নির্মাণ কাজ শুরু করবেন তিনি। এতে তার নিজেরও অভিনয়ের কথা আছে। থাকতে পারেন আলমগীর, আরিফিন শুভসহ কলকাতার বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পী।
২০০৬ সালে এ অভিনেত্রী প্রথম নির্মাণ করেছিলেন ‘আয়না’। এটি তার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র।
অনুদানের তালিকা
২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে একটি শিশুতোষ চলচ্চিত্র, দুইটি প্রামাণ্যচিত্র ও সাধারণ শাখায় পাঁচটি চলচ্চিত্রকে অনুদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।
বৃহস্পতিবার তথ্যমন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, শিশুতোষ শাখায় অনুদান পেয়েছে পরিচালক আবু রায়হান মো. জুয়েলের ‘নসু ডাকাত কুপোকাত’। প্রামাণ্যচিত্র শাখায় অনুদান পেয়েছে হুমায়রা বিলকিসের ‘বিলকিস এবং বিলকিস’, পুরবী মতিনের ‘খেলাঘর’।
সাধারণ শাখায় কবরীর ‘এই তুমি সেই তুমি’ ছাড়াও অনুদান পেয়েছে মীর সাব্বিরের ‘রাত জাগা ফুল’, আকরাম খানের ‘বিধবাদের কথা’, কাজী মাসুদের প্রযোজনা ও হোসনে মোবারক রুমির ‘অন্ত্যোষ্টিক্রিয়া’, লাকী ইনামের প্রযোজনায়, হৃদি হকের পরিচালনায় ‘১৯৭১ সেইসব দিন’।