প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ব্যবহৃত হয় শতাধিক রেজিস্ট্রার

অফিস সহকারীর প্রয়োজনীয়তা

লিটন দাশগুপ্ত

22

রেজিস্ট্রার শব্দটি ইংরেজী শব্দ, যার বাংলা হচ্ছে নিবন্ধক। আর নিবন্ধন মানে হচ্ছে অফিসে বা বিদ্যালয়ে নিয়মিত ও যাবতীয় কার্যক্রম কাগজে কলমে লিপিবদ্ধ করা। সংজ্ঞা হিসাবে বলা যেতে পারে, যে খাতা বা বইয়ে দাপ্তরিক কার্যক্রম লিখিত রূপ সংরক্ষণ করা হয়, সেই খাতা বা বই-ই হচ্ছে রেজিস্ট্রার। এটা শুধু বিদ্যালয়ে নয়, সরকারি বেসরকারি স্বায়ত্বশাসিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, এমনকি বিভিন্ন সভা সমিতি সংগঠন, ব্যবসা বাণিজ্য কিংবা দোকানেও এর গুরুত্ব অপরিসীম। একই সাথে এর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বলতে গেলেও লেখা শেষ হবেনা।
এখন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মত ছোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যদি নিয়মিত শতাধিক রেজিস্ট্রার পরিচালনা বা সংরক্ষণ করতে হয়, তাহলে ব্যাপারটা কেমন দাঁড়ায়! জানি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা শিক্ষক ছাড়া অন্যদের বা অনেকের বিশ্বাস হবেনা, এবং বিশ্বাস হবার কথাও নয়। তাই কিছু রেজিস্ট্রার এখানে উল্লেখ করতে হয়, যেমন- (১) শিক্ষক হাজিরা রেজিস্ট্রার, (২)ছাত্র হাজিরা রেজিস্ট্রার, (৩)ভর্তি রেজিস্ট্রার, (৪)ফলাফল রেজিস্ট্রার, (৪)বই বিতরণ রেজিস্ট্রার, (৫)পরিদর্শন রেজিস্ট্রার, (৬)শিশু জরীপ রেজিস্ট্রার, (৭)ক্যাশ রেজিস্ট্রার, (৮)অভর্তিকৃত শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (৯)মনোহারী দ্রব্য বিতরণ রেজিস্ট্রার, (১০)নৈমিত্তিক ছুটি বা সিএল রেজিস্ট্রার, (১১)তথ্য রেজিস্ট্রার, (১২)পরিকল্পনা বা প্ল্যানিং রেজিস্ট্রার, (১৩)অভিভাবক তালিকা রেজিস্ট্রার, (১৪)আইডিয়েল রেজিস্ট্রার, (১৫)সমন্বয় সভার সিদ্ধান্তসমূহের রেজিস্ট্রার, (১৬)আইডিএ ক্যাশ রেজিস্ট্রার, (১৭)আইডিএ ষ্টক রেজিস্ট্রার, (১৮)সাধারণ ষ্টক রেজিস্ট্রার, (১৯)পিইডিপি-২ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (২০)পিইডিপি-৩ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (২১)স্থায়ী আসবাবপত্র রেজিস্ট্রার, (২২)উপবৃত্তি শিক্ষার্থীর তালিকা রেজিস্ট্রার, (২৩)উপবৃত্তি চাহিদা রেজিস্ট্রার, (২৪)উপবৃত্তি বিতরণ রেজিস্ট্রার, (২৫)কল্যাণ সমিতির সদস্য রেজিস্ট্রার, (২৬)কল্যাণ সমিতির রেজুলেশন রেজিস্ট্রার (২৭)পিটিএ নির্বাচন রেজিস্ট্রার, (২৮)পিটিএ সভা রেজিস্ট্রার, (২৯)পিটিএ নোটিস রেজিস্ট্রার, (৩০)এসএমসি গঠন রেজিস্ট্রার, (৩১)এসএমসি নোটিস রেজিস্ট্রার, (৩২)এসএমসির কার্যবিবরণী রেজিস্ট্রার, (৩৩)স্লিপ নোটিস রেজিস্ট্রার, (৩৪)স্লিপ রেজুলেশন রেজিস্ট্রার, (৩৫)স্লিপ ক্যাশ রেজিস্ট্রার, (৩৬)স্লিপ ষ্টক রেজিস্ট্রার, (৩৭)সেক বা সামাজিক মূল্যায়ন কমিটির কার্যবিবরনী রেজিস্ট্রার, (৩৮)উঠোন বৈঠক রেজিস্ট্রার, (৩৯)অভিভাবক সমাবেশ রেজিস্ট্রার, (৪০)মা সমাবেশ রেজিস্ট্রার, (৪১)স্টাফ কাউন্সিল রেজিস্ট্রার, (৪২)ডিআর অর্ন্তভুক্তির রেজিস্ট্রার, (৪৩)সমাপনী পরীক্ষায় অংশ গ্রহন শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (৪৪)বৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (৪৫)পুনরাবৃত্তি শিক্ষার্থীর বা রিপিটার রেজিস্ট্রার, (৪৫)ঝরে পড়া বা ড্রপ আউট ছাত্রছাত্রীর রেজিস্ট্রার, (৪৬)ছাত্র ব্রিগেড রেজিস্ট্রার, (৪৭)দৈনিক উপস্থিতি রেজিস্ট্রার, (৪৮)স্টুডেন্ট কাউন্সিল গঠন রেজিস্ট্রার, (৪৯)স্টুডেন্ট কাউন্সিল সভার রেজিস্ট্রার, (৫০)প্রধান শিক্ষকের মুভমেন্ট রেজিস্ট্রার, (৫১)সহঃশিক্ষকের সাময়িক ছুটি রেজিস্ট্রার, (৫২)সাময়িক পরীক্ষায় অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (৫৩)সাময়িক পরীক্ষায় অকৃতকার্য ছাত্রছাত্রীর রেজিস্ট্রার, (৫৪)ক্লাস নোটিশ রেজিস্ট্রার, (৫৫)পরীক্ষার ডিউটি রোস্টার রেজিস্ট্রার, (৫৬)পরীক্ষার আসন বিন্যাস রেজিস্ট্রার, (৫৭)উত্তরপত্র বন্টন ও মূল্যায়ন রেজিস্ট্রার, (৫৮)বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুর রেজিস্ট্রার, (৫৯)আন্তবিদ্যালয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রার, (৬০)আন্তঃবিদ্যালয় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রার, (৬১)শিক্ষক প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (৬২)সাবক্লাস্টার রেজিস্ট্রার, (৬৩)পরীক্ষার ফিস সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (৬৪)আয়-ব্যয় রেজিস্ট্রার, (৬৫)কাব ভর্তি সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (৬৬)কাব ষষ্টক রেজিস্ট্রার, (৬৭)পাঠদান পর্যবেক্ষণ রেজিস্ট্রার, (৬৮)পাক্ষিক পরীক্ষার রেজিস্ট্রার, (৬৯)বৃক্ষ রোপন রেজিস্ট্রার, (৭০)এসআরএম বা সম্পূরক বই মজুদ রেজিস্ট্রার, (৭১) এসআরএম বিতরণ রেজিস্ট্রার, (৭২)অনুদান প্রাপ্তির রেজিস্ট্রার (৭৩)শিক্ষকদের বেতনভাতার রেজিস্ট্রার (৭৪)ক্ষুদে ডাক্তার র্কাযক্রম রেজিস্ট্রার, (৭৫)প্রাক প্রাথমিক ষ্টক রেজিস্ট্রার, (৭৬)প্রাক প্রাথমিক উপকরণ রেজিস্ট্রার, (৭৭)প্রাক প্রাথমিক ক্যাশ রেজিস্ট্রার, (৭৮)প্যারা শিক্ষক রেজিস্ট্রার, (৭৯)টাক্সফোর্স রেজুলেশন রেজিস্ট্রার, (৮০)বেইজ লাইন রেজিস্ট্রার, (৮১)অভিযোগ বা পরামর্শ রেজিস্ট্রার, (৮২)বাল্য বিবাহ রোধ রেজিস্ট্রার, (৮৩)পিইডিপি-৪ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (৮৪ স্লিপ অনুদান রেজিস্ট্রার, (৮৫)নারী নির্যাতন প্রতিরোধ সভা রেজিস্ট্রার, (৮৬)প্যাক মিটিং রেজিস্ট্রার, (৮৭)যৌথ সভা রেজিস্ট্রার, (৮৮)পিডিএম সভা রেজিস্ট্রার, (৮৯)নিডবেইজ সাবক্লাস্টার রেজিস্ট্রার, (৯০)পাঠ সমীক্ষা রেজিস্ট্রার, (৯১)বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ রেজিস্ট্রার, (৯২)বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ রেজিস্ট্রার, (৯৩)আগত পত্রাদির রেজিস্ট্রার, (৯৪)প্রত্যাগত পত্রাদির রেজিস্ট্রার, (৯৫)হোম ভিজিট রেজিস্ট্রার, (৯৬)শিক্ষক বদলী রেজিস্ট্রার, (৯৭)ক্ষুদ্র মেরামত রেজিস্ট্রার, (৯৮)বিদ্যুৎ বিল রেজিস্ট্রার, (৯৯)জাতীয় দিবস পালন রেজিস্ট্রার, (১০০)দুর্বল শিক্ষার্থীর তালিকা রেজিস্ট্রার, (১০১)কন্টিজেন্সী বিল রেজিস্ট্রার, (১০২)বিভিন্ন দিবসে পুরুষ্কার বিতরণ রেজিস্ট্রার, (১০৩)টিসি/মার্কশীট/সার্টিফিকেট বিতরণ রেজিস্ট্রার, (১০৪)অন্যবিদ্যালয়ে গমন শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (১০৫)অন্যবিদ্যালয় থেকে আগত শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (১০৬)ক্যাচমেন্ট এরিয়ার বাইরের শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার, (১০৭)অভিভাবক মোবাইল নম্বর রেজিস্ট্রার, (১০৮)মিড ডে মিল সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার, (১০৯)ডিজিটেল কনটেন্ট তৈরী রেজিস্ট্রার, (১১০)শিক্ষকদের কর্মবন্টন রেজিস্ট্রার, (১১১)রেজিষ্টারসমূহ অন্তর্ভূক্তির রেজিস্ট্রার ইত্যাদি।
উল্লেখিত এই রেজিস্ট্রার ছাড়াও বিভিন্ন বিদ্যালয় ও অঞ্চল ভেদে আরো অনেক ধরনের রেজিস্ট্রার ব্যবহার করতে হয় বা করা হয়ে থাকে, যেমন-সাইক্লোন শেল্টার এর বিভিন্ন কার্যক্রমের রেজিস্ট্রার, যে সব বিদ্যালয়ে গ্যাস বা পানির ব্যবস্থা আছে, সেই সব বিদ্যালয়ে এই সকল বিলের রেজিস্ট্রার সহ ইত্যাদি ইত্যাদি হরেক রকম রেজিস্ট্রার। আবার উল্লেখিত এই সকল রেজিষ্টারের অধিকাংশের সাথে ফাইল মেইনটেইন করতে হয়। যেমন- সিএল বা নৈমিত্তিক ছুটি রেজিষ্টারের সাথে আছে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের দরখাস্ত রাখার ফাইল; হোম ভিজিট রেজিষ্টারের সাথে পুরণকৃত হোম ভিজিট ফরমের ফাইল; স্লিপ রেজিষ্টারের সাথে ভাউচার ও জড়িত কাগজপত্রাদির ফাইল ইত্যাদি। অন্যদিকে রেজিস্ট্রার নেই, কিন্তু আলাদা ফাইল ব্যবহার ও সংরক্ষণ করতে হয়। যেমন- বিদ্যালয়ের দলিলপত্রাদির ফাইল, দপ্তরী কাম প্রহরীর নিয়োগ ও নবায়ন সংক্রান্ত ফাইল, তাদের মাসিক প্রত্যয়ন ফাইল ইত্যাদি। এই হচ্ছে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত প্রাথমিক স্তরের ব্যবহৃত রেজিস্ট্রার ও ফাইলসমুহ। এছাড়াও যে সকল বিদ্যালয়কে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা হয়েছে, সেই সকল বিদ্যালয়ের অবস্থা! উদাহরণস্বরূপ বোয়ালখালী উপজেলাধীন পশ্চিম গোমদন্ডী বশরত নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কথা বলা যেতে পারে। ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত এই সকল পূর্ণাঙ্গ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উল্লেখিত রেজিস্ট্রারসমুহের সাথে আরো প্রায় অর্ধশতাধিক রেজিস্ট্রার যোগ করা যেতে পারে।
এখন এই সকল রেজিস্ট্রার ও ফাইল যথাযথভাবে হালফিল, সুচারু ভাবে সংরক্ষনসহ ব্যবহার নিয়ন্ত্রন ও পরিচালনা করতে একজন করনিক বা অফিস সহকারীর পক্ষে আদৌ সম্ভব কিনা সন্দেহ আছে। যদিও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোন করণিক নেই, প্রধান শিক্ষক নিজেই করণিকের দায়িত্ব পালন করে থাকে। সত্যি কথা বলতে গেলে বলতে হয়, আর এই সকল রেজিষ্টারের কার্যক্রম সুসম্পন্ন করে, রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ করতে পাঠদান প্রক্রিয়া গৌণ অবস্থায় রাখতে হয়। আর শিক্ষণ শিখন প্রক্রিয়া গৌণ রেখে প্রধানশিক্ষক সহ, সকল সহকারী শিক্ষক প্রতিদিন যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হয়।
এমনিতেই প্রধান শিক্ষকের বিশাল কাজের পরিধি, তার উপর এই সকল ফাইল রেজিষ্টারের বোঝা, স্বাভাবিকভাবে একাডেমিক, প্রশাসনিক ও ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন দায়িত্ব ও কর্তব্যে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। এই অবস্থায় বিদ্যালয়ে তথ্য উপাত্ত ফাইল সংগ্রহ-সংরক্ষণ, রেজিষ্টারে হালফিল করে লিপিবদ্ধকরণসহ ইত্যাদি বহুমুখী কাজে প্রধানশিক্ষককে সহযোগিতা করার জন্যে বিদ্যালয় ভিত্তিক নূন্যতম একজন অফিস সহকারী, করণিক বা ক্লার্ক নিয়োগ একান্ত জররুী। আর এজন্যে সহকারী শিক্ষকের একগ্রেড বা একধাপ নিচে রেখে নিয়োগ দেয়ার জন্যে পদ সৃষ্টি করা যেতে পারে। একই সাথে রেজিষ্টারে সংশ্লিষ্ট কাজগুলো বাস্তবে রূপ দিতে একজন বাস্তবায়নকারী বা বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, প্রধান শিক্ষকের একগ্রেড বা একধাপ নিচের স্কেলে নিয়োগ দেয়া যেতে পারে।
এতে করে বিদ্যালয়ের দাপ্তরিক কার্যক্রম যেমন গতিশীল হবে, একই সাথে কিছু মানুষের কর্মসংস্থান ও চাকুরীর ব্যবস্থা হবে। লেখা বাহুল্য, তারপরেও লিখতে হয়, যা সর্বজন অবগত; বর্তমান সরকার বিভিন্ন দপ্তরে বিভিন্ন পদ সৃষ্টি করে নিয়োগ দিয়ে দাপ্তরিক কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করেছেন। ইতোপূর্বে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী-কাম-প্রহরী পদ সৃষ্টি করে ও নিয়োগ দিয়ে বিদ্যালয়কে কয়েক ধাপ এগিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা করেছেন। তাই শিক্ষাবান্ধব এমন সরকার থেকে শিক্ষালয়ে উল্লেখিত দুই ধরনের পদ সৃষ্টি করে নিয়োগ চাওয়াটা বেশী কিছু মনে করিনা।