অনেক পরিবর্তন পাকিস্তান দলে

11

অস্ট্রেলিয়া সফরে দুই টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির পাকিস্তান দলে জায়গা পেয়েছেন এক ঝাঁক নতুন মুখ। তিন বছরেরও বেশি সময় পর জাতীয় দলে ফিরেছেন পেসার মোহাম্মদ ইরফান। বাজে পারফরম্যান্সের জন্য আগেই টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্বের পাশাপাশি দলে জায়গা হারিয়েছেন সরফরাজ আহমেদ। দুই দলেই আছেন কিপার-ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান। ১৯ বছর বয়সী পেসার মুসা খানও জায়গা পেয়েছেন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির দুই দলেই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে খেলা টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন আহমেদ শেহজাদ, ফাহিম আশরাফ, উমর আকমল, উসমান খান শিনওয?ারি ও মোহাম্মদ নওয়াজ। মুসা ছাড়াও দলে এসেছেন ২৪ বছর বয়সী মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান খুশদিল শাহ, প্রয়াত লেগ স্পিনার আব্দুল কাদিরের ছেলে উসমান কাদির। টি-টোয়েন্টি দলের নতুন অধিনায়ক বাবর আজমের নেতৃত্বে ৩ নভেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শুরু হবে পাকিস্তানের তিন ম্যাচের সিরিজ। ২১ নভেম্বর ব্রিজবেনে আজহার আলির নেতৃত্বে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করবে পাকিস্তান।
টেস্ট থেকে অবসরের ঘোষণা দেওয়ায় সাদা পোশাকের দলে নেই পেসার মোহাম্মদ আমির ও লেগ স্পিনার শাদাব খান। বাদ পড়েছেন ফাহিম আশরাফ, ফখর জামান ও হাসান আলি। নতুন করে ডাক পেয়েছেন ঘরোয়া ক্রিকেটের পরীক্ষিত সৈনিক বাঁহাতি স্পিনার কাশিফ ভাট্টি। চমক হয়ে এসেছেন ১৬ বছর বয়সী পেসার নাসিম শাহ।
টি-টোয়েন্টির পাকিস্তান দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), আসিফ আলি, হারিস সোহেল, ফখর জামান, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, ইমাম-উল-হক, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ ইরফান, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটকিপার), মুসা খান, শাদাব খান, উসমান কাদির, ওয়াহাব রিয়াজ।
টেস্টের পাকিস্তান দল: আজহার আলি (অধিনায়ক), আবিদ আলি, আসাদ শফিক, বাবর আজম, হারিস সোহেল, ইমাম-উল-হক, ইমরান খান, ইফতিখার আহমেদ, কাশিফ ভাট্টি, মোহাম্মদ আব্বাস, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটকিপার), মুসা খান, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, শান মাসুদ, ইয়াসির শাহ।