উচ্চারকে কর্মশালার উদ্বোধনী পর্বে বক্তারা

অনুসন্ধানী পাঠক হতে হবে আবৃত্তিশিল্পীদের

24

দেশের অন্যতম প্রতিনিধিত্বশীল বাচিক ও মনন চর্চার সংগঠন উচ্চারক আবৃত্তি কুঞ্জের চতুর্দশ শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আলোচকরা বলেন, কবিতায় অনেক বিষয় অব্যক্ত থাকে, উহ্য থাকে; কবিতার সেইসব অব্যক্ত বিষয়ের প্রসঙ্গ-অনুষঙ্গ শ্রোতার মাঝে ব্যক্ত করতে পারেন একজন প্রকৃত আবৃত্তিশিল্পী। তাই আবৃত্তি চর্চার সঙ্গে যুক্ত হতে হলে তাকে হতে হবে একজন অনুসন্ধানী পাঠক। গত শুক্রবার নগরীর দামপাড়া এম এম আলী রোডে উচ্চারকের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ৩ মাসব্যাপী এই কর্মশালার উদ্বোধন পরে বিশেষ আলোচক হিসেবে ছিলেন পশ্চিম বঙ্গের খ্যাতিমান কবি ও বাচিকশিল্পী উমাপদ কর এবং সম্মিলিত আবৃত্তি জোট, চট্টগ্রামের সভাপতি বাচিকশিল্পী অঞ্চল চৌধুরী।
উচ্চারক সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী ও সাংবাদিক ফারুক তাহেরের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মৌসুমী চক্রবর্র্তীর সঞ্চালনায় কর্মশালার উদ্বোধনী পর্বে আলোচকদ্বয় আরো বলেন, একজন কবি তার দীর্ঘ পথচলার নানাবিধ অভিজ্ঞতা, পরিবেশ-প্রতিবেশ, ঘটনাপ্রবাহ ইত্যাদির মিথস্ক্রিয়া থেকেই কবিতা লিখে থাকেন। তাই কবিতায় সবকিছু বলা যায় না, বলা হয় না। এই না বলা অংশটুকু পাঠককেই খুঁজে বের করতে হয়। কবিতার এই পাঠোদ্ধারের ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারেন একজন আবৃত্তিশিল্পী। অনুষ্ঠানে চতুর্দশ আবর্তনের শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেন উচ্চারক সহ-সভাপতি এ এস এম এরফান, অর্থ সম্পাদক শামীমা ইয়াছমিন, দপ্তর সম্পাদক এ্যানি চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক রাকিব রায়হান, সদস্য নিলুফার সিরাজী, দিপা দাশ মিতু, ফারহিন মাহমুদ খান, সুরঞ্জনা বড়–য়া, মোহাম্মদ নুরনবী, দেবব্রত বিশ্বাস প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি