অনুমোদন পেল ওয়াসার প্রথম স্যুয়ারেজ প্রকল্প

নিজস্ব প্রতিবেদক

11

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় গতকাল চট্টগ্রাম ওয়াসার ‘চট্টগ্রাম মহানগরীর পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা স্থাপন (১ম পর্যায়)’ প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮৫৮ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। এটি ওয়াসার প্রথম প্রকল্প।
জানা যায়, ৫৬ বছর আগে ১৯৬৩ সালে ‘পানি সরবরাহ ও পয়ঃপ্রণালী কর্তৃপক্ষ’ নাম দিয়ে শুরু হয় ওয়াসার যাত্রা।
কিন্তু প্রতিষ্ঠার পর থেকেই পয়ঃনিষ্কাশনে কোনো প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পারেনি এ সংস্থা। তবে গতকাল একনেক সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে ২০১৮ সালের জুলাই থেকে ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত। প্রকল্পটির উন্নয়ন প্রস্তাবনা (ডিপিপি) সূত্রে জানা গেছে, প্রথম পর্যায়ে প্রকল্পের আওতায় নগরীর ৭২ হাজার বাসাবাড়ি থেকে পয়ঃনিষ্কাশন করা হবে। প্রকল্পের আওতায় ২০০ কিলোমিটার পাইপলাইন নির্মাণ এবং ১৪৪ কিলোমিটার সার্ভিস লাইন বসানো হবে। এছাড়া পয়ঃনিষ্কাশনে একটি আলাদা ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপন করা হবে। পাহাড় ও বস্তিসহ যেসব জায়গায় পাইপলাইন বসানো যাবে না, সেখান থেকে গাড়ির মাধ্যমে পয়ঃবর্জ্য নিয়ে আসা হবে এ প্ল্যান্টে। এটার ধারণ ক্ষমতা হবে ৩০০ ঘনমিলিমিটার। ১০ কোটি লিটার ক্ষমতার একটি পয়ঃশোধনাগারও নির্মাণ করা হবে প্রকল্পের আওতায়। হালিশহরের আনন্দবাজারে চট্টগ্রাম ওয়াসার ১৬৫ একর জায়গায় স্যুয়ারেজ ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট বসানো হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৭ সালের ১২ মার্চ ওয়াসার একটি অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, তিনি স্যুয়ারেজ সেন্ট্রাল ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট করার দ্রুত ব্যবস্থা নিবেন। তিনি ডিপিপি করে তা পাঠাতে নির্দেশ দেন। একনেকে তিনি সেটা দেখবেন বলেও জানান। তার নির্দেশনার পর ডিপিপি তৈরি করে সেটা পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। যাচাইবাছাই শেষে গতকাল বুধবার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়।