অনলাইন শিক্ষার সম্ভাবনা নিয়ে গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে সেমিনার

70

 

শিক্ষার ধারণা সার্বজনীন। এটা গন্ডি যেমন নির্দিষ্ট কোনো প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, তেমনি এর স্বরূপও অফলাইন-অনলাইন বিবেচ্য নয়। অনলাইন শিক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে হবে। এ জন্য বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও শিক্ষার নতুন নতুন দ্বার উন্মোচিত করতে হবে। এ সময় বক্তারা অনলাইন শিক্ষার উন্নয়নে পাবলিক-প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়কে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহব্বান জানান।
সোমবার (১ জুন) রাজধানীর গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে ‘বাংলাদেশে অনলাইন শিক্ষা: সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক অনলাইন সেমিনারে এসব কথা বলেন উপস্থিত বক্তারা। বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট এ সেমিনারের আয়োজন করে।
সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির প্রধান অতিথি এবং উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনায় অংশ নেন মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. মো. নাজমুস সাদেকীন, কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটির একাডেমিক অ্যাফেয়ার্স ডিরেক্টর ও বিজনেস স্কুলের ডিন এসএম আরিফুজ্জামান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাদিক হাসান। গ্রিন ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ও সেন্টার ফর ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট ডিরেক্টর ড. খান সরফরাজ আলী সভা পরিচালনা করেন। সেমিনারে বক্তরা বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে আমরা নতুন চ্যালেঞ্জে পড়েছি। শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আগে কখনও এ ধরণের পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়নি। তারপরও আমাদের অনলাইন পদ্ধতিতে পাঠদান ও গ্রহণ করতে হবে। কেননা শিক্ষা কখনও বন্ধ থাকতে পারে না।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, নানা প্রতিকূলতা থাকলেও অনলাইন শিক্ষা শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নতুন প্লাটফর্ম। গোটা বিশ্বের মতো বাংলাদেশকেও এ শিক্ষা মানিয়ে নিতে হবে এবং এগিয়ে যেতে হবে।
উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শুধু ক্লাস-পরীক্ষা নয়, পিএইচডির মতো থিসিসও এখন অনলাইনে হচ্ছে। তিনি বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব আমাদের জীবনের নানা পরিবর্তন নিয়ে এসেছে, যেখানে ডিজিটালাইজেশনই বড় কথা। সুতরাং অনলাইন শিক্ষাকে বাদ দিয়ে অনেক কিছুই সম্ভব নয়। এ সময় তিনি লকডাউন পরিস্থিতিতে অনলাইন এডুকেশন পরিচালনায় গ্রিন ইউনিভার্সিটির কার্যক্রম তুলে ধরেন।
সেমিনারে গ্রিন ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় চেয়ারপারসন ও শিক্ষক-কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।